শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ১০:১৮ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
দিনাজপুর থেকে প্রকাশিত সরকারি মিডিয়া তালিকাভুক্ত দৈনিক খবর একদিন পএিকার জন্য খানসামা, হাকিমপুর, ঘোড়াঘাট ও চিরিরবন্দরের জন্য উপজেলা প্রতিনিধি আবশ্যক। মেইল : khaborekdin2012@gmail.com। মোবাইল : 01714910779
সর্বশেষঃ
ফুলবাড়ীতে ঝড়ে উড়ে গেল প্রধান মন্ত্রীর উপহারের ঘরের চাল ফুলবাড়ীতে সড়ক দূর্ঘটনায় চালকসহ আহত ১০ যাত্রী ফুলবাড়ীতে আনসারদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ বীরগঞ্জে বজ্রপাতে এক নারী নিহত দিনাজপুরে সেন্ট ফিলিপস্ এলামনাই ফোরাম এর উদ্যোগে ঈদ উপহার প্রদান পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে হুইপ ইকবালুর রহিম এমপির শুভেচ্ছা দিনাজপুরে বিভিন্ন আয়োজনে আন্তর্জাতিক নার্সেস দিবস পালিত ত্যাগের মধ্যে যে আনন্দ আছে ভোগের মধ্যে তা নেই-হুইপ ইকবালুর রহিম বাংলাদেশের উন্নতির পথে বাধা সৃষ্টি করা স্বাধীনতা বিরোধীদের অপপ্রয়াস- এমপি গোপাল দিনাজপুর সরকারী মহিলা কলেজের উদ্যোগে অস্বচ্ছল জনগোষ্ঠীদের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান

দিনাজপুরে খাওয়ার অনুপোযোগী চাউল পালিশ করে ক্রেতাদের মাঝে বিক্রি করার অপরাধে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দিনাজপুরে খাওয়ার অনুপোযোগী চাল পালিশ করে ক্রেতাদের মাঝে বিক্রি করার অপরাধে এ. কে. দাস নামে এক ব্যবসায়ীকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।
সদর উপজেলা নির্বাহি অফিসার এ.এইচ.এম মাগফুরুল হাসান আব্বাসী গতকাল রোববার করোনা প্রতিরোধে বিভিন্ন হাট-বাজারে পরিদর্শন করেন। এসময় রেল বাজার হাট সংলগ্ন মেসার্স আদর্শ চাউল ঘর এর মিলে জনগণের ব্যবহারের অনুপযোগী পোঁকা ধরা ও স্যাতসেতে চাউল পালিশ করে বাজারে পুনরায় বিক্রি করার প্রস্তুতিকালে খন্দকার শওকত আলী নামে এক ব্যক্তিকে হাতেনাতে ধরে ফেলে। এ সময় মেসার্স আদর্শ চাউল ঘরের স্বত্বাধিকারী খন্দকার শওকত আলী জানান, উক্ত চাউলগুলো মেসার্স এ. কে. দাসের। তারা এই চাউল গুলো পালিশ করার জন্য আমার এই মিলে নিয়ে এসেছে, সেই চাউল পালিশ করা হচ্ছে। পরবর্তীতে একে দাস এর স্বত্বাধিকারী উক্ত মিলে আসলে তার নিকট হতে সত্যতা জানতে চাইলে তিনি দিনাজপুর সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ.এইচ.এম মাগফুরুল হাসান আব্বাসী এর নিকট সত্যতা স্বীকার করেন।
মেসার্স একে দাসের স্বত্বাধিকারী বলেন এখানে আমার মোট ১৬ বস্তা চাউল পালিশ করারার জন্য দেওয়া রয়েছে যার আনুমানিক মূল্য প্রায় ৪০ হাজার টাকা। এ সময় এ. কে. দাসকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
উপজেলা নির্বাহি অফিসার এ.এইচ.এম মাগফুরুল হাসান আব্বাসী জানান, একে দাস এর স্বত্বাধিকাররীকে উক্ত চাউল স্বল্পমূল্যে বিক্রি করে বিক্রয়ের উপযুক্ত প্রমান সহ কাগজপত্র উপজেলা নিবার্হী অফিসারের কাছে প্রেরণ করার ও চাউল পালিশ না করার জন্য কঠোরভাবে নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন