শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ০৬:৫৮ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
দিনাজপুর থেকে প্রকাশিত সরকারি মিডিয়া তালিকাভুক্ত দৈনিক খবর একদিন পএিকার জন্য খানসামা, হাকিমপুর, ঘোড়াঘাট ও চিরিরবন্দরের জন্য উপজেলা প্রতিনিধি আবশ্যক। মেইল : khaborekdin2012@gmail.com। মোবাইল : 01714910779
সর্বশেষঃ
দিনাজপুর শহরসহ জেলার ১৩টি উপজেলার প্রায় ৭ হাজার মসজিদে ঈদুল ফিতরের নামাজের জামায়াত অনুষ্ঠিত ফুলবাড়ীতে ঝড়ে উড়ে গেল প্রধান মন্ত্রীর উপহারের ঘরের চাল ফুলবাড়ীতে সড়ক দূর্ঘটনায় চালকসহ আহত ১০ যাত্রী ফুলবাড়ীতে আনসারদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ বীরগঞ্জে বজ্রপাতে এক নারী নিহত দিনাজপুরে সেন্ট ফিলিপস্ এলামনাই ফোরাম এর উদ্যোগে ঈদ উপহার প্রদান পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে হুইপ ইকবালুর রহিম এমপির শুভেচ্ছা দিনাজপুরে বিভিন্ন আয়োজনে আন্তর্জাতিক নার্সেস দিবস পালিত ত্যাগের মধ্যে যে আনন্দ আছে ভোগের মধ্যে তা নেই-হুইপ ইকবালুর রহিম বাংলাদেশের উন্নতির পথে বাধা সৃষ্টি করা স্বাধীনতা বিরোধীদের অপপ্রয়াস- এমপি গোপাল

করোনা প্রতিরোধে বিরামপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা অব্যহত

বিরামপুর সংবাদদাতা ॥ দিনাজপুরের বিরামপুরে এপ্রিলের প্রথম থেকে লকডাউনের ষষ্ঠ দিন পর্যন্ত উপজেলার বিভিন্ন স্থানে সরকার ঘোষিত বিভিন্ন বিধিনিষেধ অমান্য করায় মোট ১১৪ টি মামলায় বিভিন্ন জনের কাছ থেকে ২৮ হাজার ৮০০ টাকা অর্থদন্ড ও ২ জনের ১ মাস করে ২ মাস কারাদণ্ড এবং ১ জনকে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পরিমল কুমার সরকার। লকডাউনের জনসমাগম নিয়ন্ত্রণের জন্য প্রশাসন সর্বাত্মক চেষ্টা করছে উল্লেখ করে বিরামপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পরিমল কুমার সরকার বলেন, ‘উপজেলায় করোনা প্রতিরোধে কঠোরভাবে লকডাউন মানতে সাধারণ মানুষকে বাধ্য করতে জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে।
‘তিনি বলেন, ‘মাস্ক না পরা, সামাজিক দূরত্ব না মানা, সরকারঘোষিত যেসব দোকানপাট বন্ধ রাখার কথা সেগুলো খুলে রাখাসহ বিভিন্ন বিধিনিষেধ না মানার কারণে এসব মামলা ও জরিমানা করা হয়েছে। ‘তিনি আরো বলেন, ‘স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে জেলা প্রশাসকের নির্দেশে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে উপজেলা প্রশাসনের অনুরূপ অভিযান অব্যাহত থাকবে। মানুষ যদি সচেতন না হয়, তাহলে শতভাগ স্বাস্থ্যবিধির সাফল্য আসবে না। একজনকে অর্থদণ্ড দেওয়ার মানে তাঁর আশপাশের মানুষ যেন আরো সচেতন হন। ‘অভিযানকালে সাধারণ মানুষকে মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণের আহ্বান জানানো হয় এবং স্বাস্থ্যবিধি না মানলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়ে প্রচারণা চালানো হয়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন