ঘোড়াঘাটে নান্দনিক বালিকা বিদ্যালয়

ঘোড়াঘাট সংবাদদাতা ॥ দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট রাজিয়া সুলতানা চৌধুরী (আর সি) পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় টি উপজেলার নান্দনিক বিদ্যালয়। ১৯৬৬ সালে তৎকালীন সিও (রেভিনিও) মরুহুম ইদ্রিস আলী চৌধুরী থানার পার্শে প্রতিষ্ঠা করেন। তার সন্তানদের সহযোগিতায় বিদ্যালয়ে গড়ে উঠেছে কয়েকটি ভবন। উপজেলার সর্ব প্রথম বালিকা বিদ্যালয় রাজিয়া সুলতানা চৌধুরী নারী শিক্ষায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে। আলোয়, আলোকিত করছে এলাকার নারীদের। প্রায় সাড়ে সাত শত শিক্ষার্থী বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত। নিজ অর্থায়নে রাইজক ফাউন্ডেশন (রাজিয়া ইদ্রিস জন কল্যাণ কেন্দ্র) প্রায় ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে ২টি ভবন নির্মাণ করেছেন। আলতাফুনেছা ভবন অপর টি ইদ্রিস আলী ভবন। মনোমুগ্ধকর পরিবেশ। নান্দনিক ভবন দুটি। ইদ্রিস আলী ভবনটি প্রশাসনিক কার্যক্রম চলছে। ভবনটি থাই গ্লাস দিয়ে বেষ্টিত। ওই বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নূরবখ্ত মিয়া বলেন আলতাফুনেছা ভবনটিতে পাঠদানসহ কম্পিউটার ল্যাব, ছাত্রীদের বিশ্রামগার, সভা কক্ষ, প্রতি কক্ষে বসানো হবে সাউন্ড বক্স, নেট সংযোগ থাকবে। নেটের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা দ্রুত উন্নত শিক্ষা গ্রহণ করতে পারবে। বাহিরের কোন শব্দ ভিতরে যাবে না। রাইজক ফাউন্ডেশন ওই বিদ্যালয়ের মেধাবী গরীব শিক্ষার্থীদের উপ-বৃত্তিসহ বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা দিয়ে আসছেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন