চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে নিহত রাজিউরের লাশ ফুলবাড়ীর নিজ গ্রামে দাফন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বেতন-ভাতার দাবিতে চট্টগ্রামের বাঁশখালী বিদ্যুৎকেন্দ্রের আন্দোলনরত শ্রমিকদের বিক্ষোভে গুলির ঘটনায় নিহত দিনাজপুরের ফুলবাড়ি উপজেলার শ্রমিক রাজিউরের লাশ গত মঙ্গলাবার গভীর রাতে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়েছে। শোকাহত পরিবারকে সহানুভুতি জানাতে এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগ ফুলবাড়ি উপজেলা শাখার নেতৃবৃন্দ।
গত ১৭ এপ্রিল শনিবার চট্টগ্রামের বাঁশখালিতে এই ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় আহত গুলিবিদ্ধ রাজিউর রহমান (২২) দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার বাসিন্দা। নিহত রাজিউর রহমান (২২) ফুলবাড়ি উপজেলার বেতদিঘি ইউনিয়নের মাদিলাহাট জামাদানি গ্রামের আব্দুল মান্নান মন্ডলের পুত্র।
নিহত রাজিউর রহমানের মরদেহ গত মঙ্গলবার দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার বেতদিঘি ইউনিয়নের জামাদানি তার গ্রামের বাড়ীতে পারিবারিক কবরস্থানে রাত সাড়ে ১১ টার দিকে দাফন করা হয়। এই মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনায় তার পরিবারসহ এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
খবর পেয়ে রাতেই ফুলবাড়ীর বাম সংগঠনের নেতৃবৃন্দ রাজিউলের পরিবারের সদস্যদের সাথে দেখা করতে যান। এসময় নেতৃবৃন্দের মধ্যে ছিলেন বাংলাদেশের ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের ফুলবাড়ী উপজেলা শাখার সম্পাদক সঞ্জিত প্রসাদ জিতু, জাতীয় গণফ্রন্টের ফুলবাড়ী শাখার সমন্বয়ক হিমেল মন্ডল, নয়া গণতান্ত্রিক গণমোর্চার সংগঠক আমিনুল হক, জাতীয় কৃষক ক্ষেতমজুর সমিতির সংগঠক রিপন রায়, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর ফুলবাড়ী উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির।
উল্লেখ্য, চট্টোগ্রাম বাঁশখালী উপজেলার গণ্ডামারা ইউনিয়নের কয়লাভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে কর্মরত শ্রমিকরা তাদের বেতন ভাতা’র দাবীতে গত ১৭ এপ্রিল শনিবার সকাল ১০টার দিকে আন্দোলন করলে এ সময় পুলিশের সাথে আন্দোলনকারীদের সংঘর্ষে বন্দুকের গুলি খেয়ে গুরুতর আহত হয় শ্রমিকরা। পরে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসাধিন অবস্থায় ওইদিন ৫জন শ্রমিক মৃত্যুবরণ করেন। এঘটনায় গুলিবিদ্ধ রাজিউর রহমানকে তার সহকর্মিরা উদ্ধার করে চট্টগ্রামের বেসরকারি পার্ক ভিউ হাসপাতালে ভর্তি করালে গত ১৯ এপ্রিল রাত দেড় টার দিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মৃত্যুবরণ করেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন