কাহারোলে লকডাউনে শ্রমজীবি ও নিম্ম আয়ের মানুষ বিপাকে

কাহারোল সংবাদদাতা ॥ করোনা ভাইরাসের সংক্রমন রোধে চলতি টানা দুই সপ্তাহে লক ডাউনে দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার শ্রমজীবি ও নিম্ম আয়ের মানুষ বিপাকে পড়েছে। বিশেষ করে যে সকল শ্রমজীবি মানুষ প্রতি দিনের খাবারের জন্য প্রতি দিন কাজ করেন, তাদের বেশী দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।
কাহারোল উপজেলার সুলতানপুর গ্রামের ভ্যান চালক মতিউর বলেন, লক ডাউনের মধ্যে সংসারের ব্যয় ভার বহন করতে হিমশিম খাচ্ছি। বাজারের ঘন্টার পর ঘন্টা ভ্যান নিয়ে বসে থেকে মিলছেনা যাত্রী। নিত্য পন্য কেনাকাটার জন্য যারা বাজারে আসেন তারাও পুলিশের ভয়ে ভ্যানে উঠে না। তাই লোকজন রাস্তায় না থাকায় যাত্রী পাওয়া যায় না। একই ধরনের কথা বললেন দশমাইল বাজারের সেলুন শ্রমিক নিতাই চন্দ্র তিনি বলেন, খুর আর কাচির উপর সেলুন শ্রমিকদের সংসার। কাচি ও খুর চললে সংসার চলে আর বন্ধ থাকলে না খেয়ে থাকতে হয়। দুই সপ্তাহের লকডাউনে মালিক দোকান বন্ধ রেখেছে। এতে খুর ও কাচি বন্ধ থাকায় সংসার চালাতেও হিমশিম খাচ্ছি। তিনি জীবন জীবিকার প্রয়োজনে লকডাউন শিথিল করতে স্থায়ী প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানান।
কাহারোল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মনিরুল হাসান বলেন, লকডাউনে শ্রমজীবি নিম্ম আয়ের মানুষের কষ্ট হচ্ছে। কিন্তুু তারপরও সরকারি সিদ্ধান্ত মেনে চলতে হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন