মঙ্গলবার, ১৫ Jun ২০২১, ০৯:০৩ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
দিনাজপুর থেকে প্রকাশিত সরকারি মিডিয়া তালিকাভুক্ত দৈনিক খবর একদিন পএিকার জন্য খানসামা, হাকিমপুর, ঘোড়াঘাট ও চিরিরবন্দরের জন্য উপজেলা প্রতিনিধি আবশ্যক। মেইল : khaborekdin2012@gmail.com। মোবাইল : 01714910779
ব্রেকিং নিউজঃ
দিনাজপুরে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ বিষয়ক সচেতনতামূলক প্রচারণার উদ্বোধন দিনাজপুরে ভুমিহীন আন্দোলন রংপুর বিভাগীয় মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত নিখোঁজ ৪ তরুণের সন্ধানের দাবীতে দিনাজপুরে মানববন্ধন জিয়া হার্ট ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সাবেক মন্ত্রী মরহুমা খুরশীদ জাহান হকের ১৫তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন অঞ্জলী নারী উন্নয়ন সমবায় সমিতিকে নিবন্ধন ও সনদপত্র প্রদান দিনাজপুর নাট্য সমিতি শিল্পকলা পদকে মনোনীত হওয়ায় বঙ্গবন্ধু’র প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন নবনির্বাচিত কমিটির বীরগঞ্জে নিখোঁজের একদিন পর কৃষকের মৃতদেহ উদ্ধার নবাবগঞ্জে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত বিরামপুরে করোনা প্রতিরোধে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন, মাস্ক না পরলেই জরিমানা খানসামায় বেড়েছে জ্বর-ডায়রিয়া রোগী ॥ জনবল সংকটে সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

দিনাজপুর প্রেসক্লাবে ব্রীডস্-এর সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে ফেসবুকে ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদ ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে ফেসবুকে ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদ ও বিচার দাবী করে দিনাজপুরে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
১৮ মে মঙ্গলবার সকালে দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বেসরকারী মানবাধিকার সংস্থা ( ব্রীডস্) দিনাজপুর এর নির্বাহী পরিচালক এস.এম আবুল হাসনাত সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন,গত ৪ এপ্রিল/২১ দিনাজপুর পাবুর্তীপুর উপজেলার আমবাড়ি গ্রামের স্থানীয় বিএনপি নেতা ও সন্ত্রাসীদের গডফাদার প্রভাবশালী মো: লিটন মন্ডলের ফেসবুক আইডি‘তে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে জড়িয়ে অশ্লিল ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ করা হয়। এ ঘটনায় গত ২২ এপ্রিল/২১ লিটন মন্ডল, গোলাম রব্বানী, মো: মাসুদ, আহাত আলী, মো: আনিসুর ও মো: মোক্তারুলকে আইনের আওতায় আটক এবং বিচার চেয়ে পার্বতীপুর মডেল থানায় অভিযোগ করায় আমবাড়ি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের অফিসার আসাদ ঘটনার তদন্ত করতে আসেন। এসেই দেখেন আসামীরা তার পূর্ব পরিচিত এজন্য তাদের আইডি থেকে ব্যঙ্গচিত্রটি ডিলেট করার পরামর্শ দিয়ে আর্থিক ফায়দা নিয়ে তিনি চলে যান। এব্যাপারে পুলিশ আর কোনো পদক্ষেপই গ্রহন করেনি বরঞ্চ অভিযোগকারীর পরিচয় জানিয়ে দেয়। ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশকারী লিটন মন্ডল এরপর েেথকে এসএম আবুল হাসনাতকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো ও হত্যা করে লাশগুমের হুমকী দিয়ে বেড়াচ্ছে। তিনি জানান, লিটন মন্ডল প্রভাবশালী হওয়ার কারণে পুলিশকে ম্যানেজ করে এলাকায় নানান ধরনের অপকর্ম চালিয়ে আসছে।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, অশ্লীল ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের ঘটনা তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দেয়া হোক যাতে করে ভবিষতে কেউ সরকার প্রধান সর্ম্পকে এধরনের ধৃষ্টতা দেখানোর সাহস না পায়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন