মঙ্গলবার, ১৫ Jun ২০২১, ১১:০৮ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
দিনাজপুর থেকে প্রকাশিত সরকারি মিডিয়া তালিকাভুক্ত দৈনিক খবর একদিন পএিকার জন্য খানসামা, হাকিমপুর, ঘোড়াঘাট ও চিরিরবন্দরের জন্য উপজেলা প্রতিনিধি আবশ্যক। মেইল : khaborekdin2012@gmail.com। মোবাইল : 01714910779
ব্রেকিং নিউজঃ
দিনাজপুরে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ বিষয়ক সচেতনতামূলক প্রচারণার উদ্বোধন দিনাজপুরে ভুমিহীন আন্দোলন রংপুর বিভাগীয় মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত নিখোঁজ ৪ তরুণের সন্ধানের দাবীতে দিনাজপুরে মানববন্ধন জিয়া হার্ট ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সাবেক মন্ত্রী মরহুমা খুরশীদ জাহান হকের ১৫তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন অঞ্জলী নারী উন্নয়ন সমবায় সমিতিকে নিবন্ধন ও সনদপত্র প্রদান দিনাজপুর নাট্য সমিতি শিল্পকলা পদকে মনোনীত হওয়ায় বঙ্গবন্ধু’র প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন নবনির্বাচিত কমিটির বীরগঞ্জে নিখোঁজের একদিন পর কৃষকের মৃতদেহ উদ্ধার নবাবগঞ্জে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত বিরামপুরে করোনা প্রতিরোধে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন, মাস্ক না পরলেই জরিমানা খানসামায় বেড়েছে জ্বর-ডায়রিয়া রোগী ॥ জনবল সংকটে সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

দিনাজপুরে করোনায় আরো ৩ জনের মৃত্যু ॥ আক্রান্ত ২৩ জন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দিনাজপুরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে। গত দুই দিনে ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। ২৪ ঘন্টায় নতুন আরো ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় এখন পর্যন্ত ১৩৪ জনের মৃত্যু হলো। আর নতুন ২৩ জনসহ এ পর্যন্ত ৫৯৪৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। একই সময়ে নতুন আরো ২০ জনসহ এ পর্যন্ত ৫৫২২ সুস্থ হয়েছেন। তবে আক্রান্ত ৫৯৪৮ জনের মধ্যে ৫৫২২ জন সুস্থ ও ১৩৪ জনের মৃত্যু হওয়ায় বর্তমানে দিনাজপুর জেলায় করোনায় আক্রান্ত রোগির সংখ্যা রয়েছে ২৯২ জন।
দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ জানান, শনিবার (৫ জুন) দুপুর ১২টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘন্টায় আরটি পিসিআর টেষ্ট ১৩৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ২৩ জনের দেহে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত রোগির সংখ্যা পৌঁছেছে ৫৯৪৮ জনে। নতুন আক্রান্ত ২৩ জনের মধ্যে সদর উপজেলাতেই ১৫ জন। এছাড়া বিরলে ৩ জন, বিরামপুরে একজন, ফুলবাড়ীতে একজন ও হামিকপুর উপজেলায় ৩ জন। একই সময়ে নতুন আরো ২০ জনসহ এ পর্যন্ত ৫৫২২ জন সুস্থ হয়েছেন। আর সদর উপজেলায় একজন, বিরলে একজন বিরামপুর একজনসহ এখন পর্যন্ত ১৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার আক্রান্তের হার ১৭ দশমিক ২৯ শতাংশ।
দিনাজপুর সিভিল সার্জন আব্দুল কুদ্দুস আরো জানান, গত দুই সপ্তাহ ধরে করোনা সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী। বিশেষ করে দিনাজপুর সদর উপজেলায় সংক্রমণ অস্বাভাবিকহারে বৃদ্ধি পেয়েছে। ইতোমধ্যে জেলা করোনা কমিটির বৈঠক হয়েছে। আমরা দুই-একটি উপজেলাকে কঠোর লকডাউনের আওতায় আনার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে যাচ্ছি। আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ঘোষণাপত্র জারি করা হতে পারে বলে জানান তিনি।
সিভিল সার্জন জানান, চলতি বছরের ৬ জানুয়ারি দিনাজপুর জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মত্যুর সংখ্যা ছিল ১০০ জনে। এরপর প্রায় দেড় মাস ধরে জেলায় করোনায় কোন মৃত্যুর ঘটনা না ঘটলেও গত ২০ মার্চ জেলায় করোনায় একজনের মৃত্যু হয়। এরপর জুন মাসের প্রথম থেকে জেলায় আশঙ্কাজনকহারে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে যায়। গত ২ জুন জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে একজন, ৩ জুন দুইজন, ৪ জুন দুইজন ও ৫ জুন তিন জনের মৃত্যু হয়েছে।
সিভিল সার্জন আব্দুল কুদ্দুস আরো জানান, গত দুই সপ্তাহ ধরে করোনা সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী। বিশেষ করে দিনাজপুর সদর উপজেলায় সংক্রমণ অস্বাভাবিকহারে বৃদ্ধি পেয়েছে। ইতোমধ্যে জেলা করোনা কমিটির বৈঠক হয়েছে। আমরা দুই-একটি উপজেলাকে কঠোর লকডাউনের আওতায় আনার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে যাচ্ছি। আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ঘোষণাপত্র জারি করা হতে পারে বলে জানান তিনি।
মোট আক্রান্ত ৫৯৪৮ জনের মধ্যে সদর উপজেলায় সবচেয়ে বেশী ৩৩৫৩ জন। এছাড়া বিরলে ৩৪৫, বিরামপুরে ৩৩৯ জন, বীরগঞ্জে ১৭৪ জন, বোচাগঞ্জে ১৬০ জন, চিরিরবন্দরে ২৪৩ জন, ফুলবাড়ীতে ২০৩ জন, ঘোড়াঘাটে ৯৩ জন, হাকিমপুরে ১১১ জন, কাহারোলে ১৭২ জন, খানসামায় ১২৫ জন, নবাবগঞ্জে ১৫৬ ও পার্বতীপুর উপজেলায় ৪৭৪ জন।
মোট মৃত ১৩৪ জনের মধ্যে সদর উপজেলায় ৬৪, বিরলে ৮ জন, বিরামপুরে ৭ জন, বীরগঞ্জে ৬ জন, বোচাগঞ্জে ৫ জন, চিরিরবন্দরে ১২ জন, ফুলবাড়ীতে ৮ জন, হাকিমপুরে একজন, কাহারোলে ৫ জন, খানসামায় ৪ জন, নবাবগঞ্জে ৩ জন ও পার্বতীপুর উপজেলায় ১১ জন। তবে জেলার ১৩টি উপজেলার মধ্যে ঘোড়াঘাট উপজেলায় এখন পর্যন্ত কারো মৃত্যু হয়নি।
সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ আরো জানান, গত ২৪ ঘন্টায় ১১৪টিসহ এ পর্যন্ত ৪৩৯৪৮টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আর গত ২৪ ঘন্টায় ১৩৩টিসহ এ পর্যন্ত ৪১১৬২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এ ছাড়া গত ২৪ ঘন্টায় ৮১ জনসহ ৩৪১৪৯ জন কোয়ারেন্টাইন নেয়া হয়েছে এবং ৫১ জনসহ ৩৩৭৭৭ জন কোয়ারেন্টাইন হতে ছাড় পেয়েছেন। বর্তমানে হোম আইসোলেশনে রয়েছেন ২৬৫ জন ও হাসপাতালে ২৭ জন ভর্তি রয়েছেন বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন