মঙ্গলবার, ১৫ Jun ২০২১, ১০:৫৬ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
দিনাজপুর থেকে প্রকাশিত সরকারি মিডিয়া তালিকাভুক্ত দৈনিক খবর একদিন পএিকার জন্য খানসামা, হাকিমপুর, ঘোড়াঘাট ও চিরিরবন্দরের জন্য উপজেলা প্রতিনিধি আবশ্যক। মেইল : khaborekdin2012@gmail.com। মোবাইল : 01714910779
ব্রেকিং নিউজঃ
দিনাজপুরে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ বিষয়ক সচেতনতামূলক প্রচারণার উদ্বোধন দিনাজপুরে ভুমিহীন আন্দোলন রংপুর বিভাগীয় মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত নিখোঁজ ৪ তরুণের সন্ধানের দাবীতে দিনাজপুরে মানববন্ধন জিয়া হার্ট ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সাবেক মন্ত্রী মরহুমা খুরশীদ জাহান হকের ১৫তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন অঞ্জলী নারী উন্নয়ন সমবায় সমিতিকে নিবন্ধন ও সনদপত্র প্রদান দিনাজপুর নাট্য সমিতি শিল্পকলা পদকে মনোনীত হওয়ায় বঙ্গবন্ধু’র প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন নবনির্বাচিত কমিটির বীরগঞ্জে নিখোঁজের একদিন পর কৃষকের মৃতদেহ উদ্ধার নবাবগঞ্জে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত বিরামপুরে করোনা প্রতিরোধে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন, মাস্ক না পরলেই জরিমানা খানসামায় বেড়েছে জ্বর-ডায়রিয়া রোগী ॥ জনবল সংকটে সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

সন্ত্রাসীদের হাত থেকে জীবন ও সম্পদ রক্ষায় প্রশাসনের সহযোগীতা চেয়ে দিনাজপুরে অসহায় প্রধান শিক্ষকের সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ৫ লাখ টাকা চাঁদার দাবী পরিশোধ করতে না পারায় সন্ত্রাসীদের হুমকীর মুখে পরিবার পরিজন নিয়ে জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন দিনাজপুর বিরল উপজেলার অসহায় এক প্রধান শিক্ষক ।
জীবন ও সম্পদের নিরাপত্তা দাবী করে ৭ জুন সোমবার সকালে দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করেন দিনাজপুর বিরল উপজেলার মির্জাপুর গ্রামের মৃত হামিদুল্লাহ‘র পুত্র এবং মির্জাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: আব্দুল মোত্তিলব।
আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন,বিরল উপজেলার মির্জাপুর মৌজার জেএলনং-১৯৬,সিএস খতিয়ান নং৩৫,১৪৭,এসএ খতিয়ান নং ১১ ও এসএ নং ১৬ এর ২৮৩/৬৬২ নং দাগের ১৪ শতক জমির মধ্যে ৪ শতক জমি পরিবার পরিজন নিয়ে আমি দীর্ঘদিন ভোগ দখল করছি। ২০২০ সালের অক্টোবর মাসে ওই জমিতে আমি মার্কেটের জন্য দোকানঘর নির্মানের কাজ শুরু করলে প্রতিপক্ষ নজরুল ইসলাম ও তার সহযোগী সন্ত্রাসীরা ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করেন। চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে নজরুল ও সন্ত্রাসীরা আমার দোকানঘর ভাংচুর করে আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়। তাতেও তারা ক্ষান্ত হয়নি উল্টো আমার নামেই আদালতে ১০৭ ধারায় মোকদ্দমা দায়ের করে কিন্তু পুলিমী তদন্তে তা মিথ্যা প্রমানিত হয় এবং আমি তাদের বিরুদ্ধে ১০৭ ধারায় আদালতে মামলা করলে তারা আমার কোনো ক্ষতি করবে না মর্মে বন্ড দেয়। এছাড়াও তারা আমার কর্মস্থলের ক্ষতি করার জন্যে স্থানীয় বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে মিথ্যা তথ্য পরিবেশন করে নানান ভাবে হয়রানী করেই চলেছে। আমি নজরুল ইসলামের সকল অপকর্মের সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে বিচার দাবী করছি।
সন্ত্রাসীদের মদদদাতা নজরুল ইসলাম ও তার সন্ত্রাসীদের হাত থেকে জীবন ও সম্পদ রক্ষায় প্রশাসনের সহযোগীতা কামনা করেন প্রধান শিক্ষক মো: আব্দুল মোত্তালিব।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন