মঙ্গলবার, ১৫ Jun ২০২১, ০৯:৫৫ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তিঃ
দিনাজপুর থেকে প্রকাশিত সরকারি মিডিয়া তালিকাভুক্ত দৈনিক খবর একদিন পএিকার জন্য খানসামা, হাকিমপুর, ঘোড়াঘাট ও চিরিরবন্দরের জন্য উপজেলা প্রতিনিধি আবশ্যক। মেইল : khaborekdin2012@gmail.com। মোবাইল : 01714910779
ব্রেকিং নিউজঃ
দিনাজপুরে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ বিষয়ক সচেতনতামূলক প্রচারণার উদ্বোধন দিনাজপুরে ভুমিহীন আন্দোলন রংপুর বিভাগীয় মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত নিখোঁজ ৪ তরুণের সন্ধানের দাবীতে দিনাজপুরে মানববন্ধন জিয়া হার্ট ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সাবেক মন্ত্রী মরহুমা খুরশীদ জাহান হকের ১৫তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন অঞ্জলী নারী উন্নয়ন সমবায় সমিতিকে নিবন্ধন ও সনদপত্র প্রদান দিনাজপুর নাট্য সমিতি শিল্পকলা পদকে মনোনীত হওয়ায় বঙ্গবন্ধু’র প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন নবনির্বাচিত কমিটির বীরগঞ্জে নিখোঁজের একদিন পর কৃষকের মৃতদেহ উদ্ধার নবাবগঞ্জে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত বিরামপুরে করোনা প্রতিরোধে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন, মাস্ক না পরলেই জরিমানা খানসামায় বেড়েছে জ্বর-ডায়রিয়া রোগী ॥ জনবল সংকটে সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

দিনাজপুরে করোনায় আরো একজনসহ এ পর্যন্ত ১৩৮ জনের মৃত্যু ॥ নতুন ৪৪ জনসহ মোট আক্রান্ত ৬১৮৮ জন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দিনাজপুরে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে। গত ২৪ ঘন্টায় আরো একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় এখন পর্যন্ত ১৩৮ জনের মৃত্যু হলো। আর গত ২৪ ঘন্টায় নতুন আরো ৪৪ জনসহ এ পর্যন্ত জেলায় ৬১৮৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। একই সময়ে নতুন ১৫ জনসহ এ পর্যন্ত ৫৬১৬ সুস্থ হয়েছেন। বর্তমানে দিনাজপুর জেলায় করোনায় আক্রান্ত রোগির সংখ্যা রয়েছে ৪৩৪ জন। যা আগের দিন ছিল ৪০৬ জন।
দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ জানান, শুক্রবার (১১ জুন) দুপুর ১০টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘন্টায় ১৪৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ৪৪ জনের দেহে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত রোগির সংখ্যা পৌঁছেছে ৬১৮৮ জনে। নতুন আক্রান্ত ৪৪ জনের মধ্যে সদর উপজেলা সবচেয়ে বেশী ৩৩ জন। এছাড়া বিরলে দুইজন, বিরামপুরে ৪ জন, বোচাগঞ্জে একজন ও পার্বতীপুর উপজেলায় ৪ জন। একই সময়ে নতুন আরো ১৫ জনসহ এ পর্যন্ত ৫৬১৬ জন সুস্থ হয়েছেন। আর সদর উপজেলায় একজনসহ এ পর্যন্ত ১৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার আক্রান্তের হার ছিল ২৯ দশমিক ৯৩ শতাংশ।
সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ জানান, সদর উপজেলার পৌর শহরের উপশহর, নিমনগর, কালিতলা, রামনগর, ঘাসিপাড়া, পুলহাট, পাটুয়াপাড়া, শেখপুরা, ফুলবাড়ী বাসস্ট্যান্ড, চাউলিয়াপট্টি, পাহাড়পুর, মুন্সিপাড়া, টিএন্ডটি রোড, মালদহপট্টি, হাউজিং মোড়, মাসিমপুর, জালালপুর প্রভৃতি এলাকায় সবচেয়ে বেশি কোভিড-১৯ পজিটিভ রোগি (করোনা রোগী) শনাক্ত হয়েছেন। এসব এলাকায় ছাড়াও সদর উপজেলার অন্যান্য এলাকার লোকজনের মাঝে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাতে উদাসীনতা পরিলক্ষিত হচ্ছে এবং মাস্ক পরিধানের হার খুব-ই নগণ্য। এ কারণে সদর উপজেলাবাসিকে সতর্ক হওয়া ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহবান জানান সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ।
দিনাজপুরে মোট আক্রান্ত ৬১৮৮ জনের মধ্যে সদর উপজেলায় সবচেয়ে বেশী ৩৫২১ জন। এছাড়া বিরলে ৩৪৮, বিরামপুরে ৩৪৯ জন, বীরগঞ্জে ১৭৯ জন, বোচাগঞ্জে ১৬৮ জন, চিরিরবন্দরে ২৪৯ জন, ফুলবাড়ীতে ২১০ জন, ঘোড়াঘাটে ৯৩ জন, হাকিমপুরে ১১৭ জন, কাহারোলে ১৭৩ জন, খানসামায় ১২৫ জন, নবাবগঞ্জে ১৬২ ও পার্বতীপুর উপজেলায় ৪৯৪ জন।
মোট মৃত ১৩৮ জনের মধ্যে সদর উপজেলায় ৬৭, বিরলে ৮ জন, বিরামপুরে ৮ জন, বীরগঞ্জে ৬ জন, বোচাগঞ্জে ৫ জন, চিরিরবন্দরে ১২ জন, ফুলবাড়ীতে ৮ জন, হাকিমপুরে একজন, কাহারোলে ৫ জন, খানসামায় ৪ জন, নবাবগঞ্জে ৩ জন ও পার্বতীপুর উপজেলায় ১১ জন। তবে জেলার ১৩টি উপজেলার মধ্যে ঘোড়াঘাট উপজেলায় এখন পর্যন্ত কারো মৃত্যু হয়নি।
সিভিল সার্জন জানান, গত ২৪ ঘন্টায় ২৪৭টিসহ এ পর্যন্ত ৪৫০৭৮টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আর গত ২৪ ঘন্টায় মোট ১৪৭টিসহ এ পর্যন্ত ৪২০৯১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এ ছাড়া গত ২৪ ঘন্টায় ১৩৬ জনসহ ৩৫৯১৭ জন কোয়ারেন্টাইন নেয়া হয়েছে এবং ৭১ জনসহ ৩৪১৫০ জন কোয়ারেন্টাইন হতে ছাড় পেয়েছেন। বর্তমানে হোম আইসোলেশনে রয়েছেন ৩৯৭ জন ও হাসপাতালে ৮৩ জন ভর্তি রয়েছেন। এর মধ্যে করোনায় আক্রান্ত ৩৭ জন আর উপসর্গযুক্ত সন্দেহভাজন ৪৬ জন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন