বিরামপুরে অটোরিক্সা চালককে গলা কেটে হত্যা

বিরামপুর সংবাদদাতা ॥ দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলায় রেজাউল করিম ঝেল্টু (৩৭) নামের এক আটোরিক্সা চালককে গলা কেটে হত্যা করেছে দূর্বৃত্তরা। পুলিশ তার মরদেহটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে এসেছে। ধারনা করা হচ্ছে রাতের আঁধারে দূর্বৃত্তরা তার গলাকেটে হত্যা করে মরদেহটি রেখে পালিয়ে যায়।
১২ জুন শনিবার সকালে পৌরশহরের শিমলতলী গড়েরপাড় রাস্তার ওপর থেকে রেজাউল করিমের গলাকাটা মরদেহটি উদ্ধার করেছে বিরামপুর থানা পুলিশ। নিহত রেজাউল করিম উপজেলার শান্তিনগর এলাকার মৃত: রজব আলীর ছেলে। বিরামপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মতিয়ার রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
স্থানীয়দের বরাত দিয়ে থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মতিয়ার রহমান বলেন-রেজাউল করিম দীর্ঘদিন ধরে শহরের রিক্সা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করেন। রাতের আঁধারে কে বা কাহারা তাকে গলা কেটে হত্যা মরদেহটি রাস্তার ওপর ফেলে রেখে চলে যান। সকালে স্থানীয়দের দেয়া খবরে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপাস্থিত হয়ে রেজাউলের মরদেহটি উদ্ধার করেন।
জানতে চাইলে বিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন কুমার মহন্ত বলেন- আমরা যতটুকু খোঁজ নিয়ে জানতে পেরেছি নিহত রেজাউল করিমের, পেশায় একজন রিক্সাচালক। রাতের আধাঁরে তাকে কে বা কাহারা গলাকেটে হত্যা করে। পুলিশ তার মহদেহটি রাস্তার ওপর থেকে উদ্ধার করেছে। তিনি আরো বলেন-রেজাউলের ব্যবহৃত বেটারি চালিত অটোরিক্সা,মোবাইল ফোন ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। রেজাউলের পরনে রেইনকেট ছিলো। মরদেহটি পোস্টমর্টেম করার জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার রহস্য উদঘাটন ও আসামী গ্রেফতারের জোর প্রচেষ্ঠা চলছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন