সারাদেশে সিনোফার্মের গণটিকাদান শুরু হচ্ছে আজ

দৈনিক খবর একদিন॥ সারাদেশে চীনের সিনোফার্মের গণটিকাদান কার্যক্রম শুরু হচ্ছে আজ বৃহস্পতিবার থেকে। সারাদেশের সকল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, জেলা হাসপাতাল, সদর হাসপাতাল, চট্টগ্রামের বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকসাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি) হাসপাতাল এবং সৈয়দপুর সদর হাসপাতালে এই টিকাদান করা হবে। প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত এ হাসপাতালগুলোতে পূর্বের ন্যায় টিকাদান কার্যক্রম শুরু হবে। রাজধানীতে ইতোপূর্বে ৪৮টি কেন্দ্রে টিকাদান করা হলেও এ মুহূর্তে ৮টি বাদে ৪০টি কেন্দ্রে পূর্বের ন্যায় একই সময়ে একই নিয়মে টিকাদান কার্যক্রম চালু হবে। স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনা ভ্যাকসিন ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য সচিব মো. শামসুল হক গতকাল বুধবার কোভিড-১৯ পরিস্থিতি নিয়ে অধিদফতরে ভার্চুয়াল স্বাস্থ্য বুলেটিনে বক্তব্যকালে এসব কথা বলেন। তিনি জানান, ৩০ জুন থেকে করোনার টিকা প্রদানের জন্য রেজিস্ট্রেশন পুনরায় শুরু হয়েছে। নতুন করে রেজিস্ট্রেশন করেও মানুষ সিনোফার্মের টিকা নিতে পারবেন। সিনোফার্মের টিকাদানের ক্ষেত্রে সরকারি-বেসরকারি মেডিকেল ও ডেন্টাল কলেজের শিক্ষার্থী, সরকারি নার্সিং, আইএইচটি, ম্যাটস ও মিডওয়াইফ এবং সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলের তালিকাভুক্ত শিক্ষার্থী, পুলিশ ও সম্মুখ সারির কর্মীরা এ টিকা প্রদানে অগ্রাধিকার পাবেন। যারা আগে রেজিস্ট্রেশন করে টিকা নিতে পারেননি তারাও এসব কেন্দ্রে টিকা নিতে পারবেন।
ফাইজারের টিকাদানও আজ, পাবেন নির্দিষ্ট প্রবাসীকর্মীরা: এদিকে আজ বৃহস্পতিবার থেকে রাজধানী ঢাকার সাতটি কেন্দ্রে ফাইজারের টিকাদান কার্যক্রম শুরু হবে। কেন্দ্রগুলো হলো- ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ (মিটফোর্ড হাসপাতাল), কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতাল এবং শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ)। প্রাথমিকভাবে ফাইজারের টিকা প্রবাসী কর্মীরা পাবেন। এ ক্ষেত্রে যেসব দেশে ফাইজারের টিকা প্রদানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে সেসব দেশের প্রবাসী কর্মীরা ফাইজারের টিকা পাবেন। গতকাল বুধবার কোভিড-১৯ পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য বুলেটিনে বক্তব্যকালে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনা ভ্যাকসিন ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য সচিব মো. শামসুল হক এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, জনশক্তি উন্নয়ন ব্যুরোর মাধ্যমে প্রবাসী কর্মীদের তালিকা স্বাস্থ্য অধিদফতরে পাঠানো হচ্ছে। সে তালিকা যাচাই-বাছাই করে তথ্যভাÐারে নিয়ে চ‚ড়ান্ত তালিকা করে প্রবাসী কর্মীদের রেজিস্ট্রেশনভুক্ত করা হবে। এরপর তাদের কাছে ক্ষুদে বার্তা পাঠানো হবে। মো. শামসুল হক আরও বলেন, সে ক্ষুদে বার্তা দেখিয়ে প্রবাসী কর্মীরা দেশের যেকোনো টিকাদান কেন্দ্র থেকে টিকা নিয়ে বিদেশে যেতে পারবেন। তবে রেজিস্ট্রেশন ছাড়া কেউ টিকা দিতে পারবেন না বলেও জানান তিনি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন