বিরলে লকডাউন বাস্তবায়নে কঠোর অবস্থানে উপজেলা প্রশাসন

বিরল (দিনাজপুর) প্রতিনিধি.
করোনা ভাইরাস সংক্রমন বিস্তার রোধে সরকার ঘোষিত সপ্তাহব্যাপী কঠোর লকডাউনের চতুর্থ দিনেও বিরলে লকডাউন বাস্তবায়নে কঠোর অবস্থানে উপজেলা প্রশাসনসহ আইন প্রয়োগকারী সংস্থা।
রোববার সকাল থেকেই বিরল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহমুদা সুলতানা, বিরল উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাবের মোহাম্মদ সোয়াইব পৃথক পৃথক ভাবে রকডাউন বাস্তবায়নের টহল অব্যাহত রেখেছে। উপজেলা প্রশাসনকে সহায়তা করছে বিরল থানা অফিসার ইনচার্জ ফখরুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশ ও আনসার ভিডিপির সদস্যরা।
উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজার গুলোতে মোতায়েন করা হয়েছে গ্রাম পুলিশ ও আনসার ভিডিপি সদস্যদের। সপ্তাহব্যাপী লকডাউনের চতুর্থদিনে রোববার সকাল থেকে বিরল পৌর শহরের কাচা বাজার, মাছ ও মাংসের দোকান সড়িয়ে বিরল সরকারি পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয় ক্যাম্পাসে স্থানন্তর করা হয়েছে।
বিরল উপজেলায় গত ২৪ ঘন্টায় ৩৮ জনের করোনা পরীক্ষায় ১১ জন সনাক্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত ৫১৮ জন করোনা সনাক্ত রোগির মধ্যে ৩৪৯ জন সুস্থ্য হলেও এখনো ১৫৯ জন করোনা রোগি চিকিৎসাধীন রয়েছে। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিরলে এ পর্যন্ত মৃতু হয়েছে ১০ জন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহমুদা সুলতানা ও উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভুমি) জাবের মোহাম্মদ সোয়াইব সরকার ঘোষিত লকডাউন বাস্তবায়নে জনসাধারনকে সচেতনতা বৃদ্ধিসহ সরকারের নির্দেশনা অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে জরিমানাও আদায় করছেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন