অবৈধভাবে অবস্থানরতদের হল ছাড়া করেছে হাবিপ্রবি প্রশাসন

হাবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ

হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) আবাসিক হলে অবৈধভাবে অবস্থানরত সকল শিক্ষার্থীকে (৫ জুলাই) রাতের মধ্যেই হল ছাড়া করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. কামরুজ্জামানের মৌখিক নির্দেশনা পাওয়ার পর পরই অবৈধভাবে হলে অবস্থানকারী শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের জন্য বলে আসছিলেন প্রক্টোরিয়াল ও এডভাইজারি বডি। কিন্তু এরপরেও শিক্ষার্থীরা হল ত্যাগ না করলে আজ সোমবার (৫ জুলাই) প্রক্টর প্রফেসর ড. মো: খালেদ হোসেন ও ছাত্র উপদেষ্টা প্রফেসর ড. মো. ইমরান পারভেজের নেতৃত্বে সন্ধ্যা থেকে হল গুলোতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় হলে অবস্থানকারী সকল শিক্ষার্থীদের বের করে দিয়ে হল গুলো সিলগালা করে দেয় হল প্রশাসন।

অভিযানের ব্যাপারে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মো: খালেদ হোসেন জানান, বিভিন্ন সময়ে নোটিশ দিয়ে শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগ করতে বলা হয়েছিল। কিন্তু এরপরেও কিছু সংখ্যক শিক্ষার্থী আদেশ অমান্য করে হলে অবস্থান করে আসছিল বলে আমরা জানতে পারি। এর পরিপ্রেক্ষিতে আজকে আমরা হলে অভিযান চালিয়েছি। যারা অবৈধভাবে হলে অবস্থান করে আসছিল তাদের বের করে দিয়ে হল সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের আবাসিক শিক্ষার্থী মো: আবির জানান, সন্ধার পরেই অভিযান চালিয়ে আমাদের হলে অবস্থানরত সকল শিক্ষার্থীকে বের করে দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এদিকে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, হাবিপ্রবির শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান হল, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলসহ শেখ রাসেল হলে দীর্ঘদিন ধরেই হল প্রশাসনের আদেশ অমান্য করে বেশ কিছু শিক্ষার্থী এসব আবাসিক হলে অবস্থান করে আসছিলো।

উল্লেখ্য, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে করোনায় বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ এবং হলে অবস্থান না করার ব্যাপারে কঠোর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। ফলে হলে অবস্থানকারী এসব শিক্ষার্থীদের ব্যাপারে জানতে পেরে গতকাল (৪ জুলাই) ডিনদের সাথে এক আলোচনা সভা শেষে নবনিযুক্ত উপাচার্য এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষণা দেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন