দিনাজপুরে মজিববর্ষে পুলিশের পক্ষ থেকে ফলজ, বনজ ও ঔষধী গাছ রোপন

দিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুরে পরিবেশ ভারসাম্য রক্ষায় পুলিশ মহাপরিদর্শকের পরিকল্পনায় একযোগে এই জেলার ১৩টি উপজেলার ফলজ, বনজ ও ঔষধী গাছের চারা রোপনের কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু করা হয়েছে।
দিনাজপুর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন জানান, বুধবার দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে জেলার ১৩টি উপজেলায় ৩০টি পুলিশের ইউনিটে পুলিশ কর্মকর্তা ও পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা প্রত্যেকে ১টি করে ফলজ, বনজ ও ঔষধী গাছের চারা রোপণের মাধ্যমে বৃক্ষ রোপন কর্মসূচীর কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। তিনি জানান, এই জেলায় ১৩টি থানা ৯টি সার্কেল সহ ৩০টি পুলিশের ইউনিট, পুলিশ সুপার কার্যালয়, পুলিশ লাইন ও পুলিশ প্রশাসনের অধিনস্থ যে সমস্ত স্থান রয়েছে ওই স্থানে পরিত্যাক্ত জায়গায় এবং যেখানে বৃক্ষরোপন করা যায় সেসব স্থানে চলতি বছর এ পর্যন্ত ৩০ হাজার ফলজ, বনজ ও ঔষধী গাছের চারা রোপন করা হয়েছে।
তিনি জানান, পুলিশের লক্ষমাত্রা রয়েছে এই জেলায় এ বছর ১ লক্ষ ফলজ, বনজ ও ঔষধী গাছের চারা রোপন করা হবে। যেহেতু মুজিববর্ষের এই বছরে পুলিশের প্রতিপাদ্য বিষয় দেশের ভারসাম্য রক্ষায় যে ভূমি রয়েছে তার ২৫ শতাংশ ভূমিতে বৃক্ষ থাকলে দূর্যোগ ও ভয়াবহ পরিস্থিতি থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে। কিন্তু জেলার বন বিভাগের সূত্রে জানা গেছে দেশে ১০ থেকে ১২ শতাংশ ভূমিতে বৃক্ষ রয়েছে। ফলে দেশের পরিবেশ ভারসাম্য রক্ষা করা কঠিন হয়ে পড়েছে। এ কারণেই পুলিশ দেশের আইন শৃঙ্খলা রক্ষার পাশাপাশি তাদের নিজ অফিস কার্যালয়ের আশপাশ ও পরিত্যাক্ত স্থানে বৃক্ষ রোপন কার্যক্রম মজিববর্ষের শুরু করেছে। বৃক্ষ রোপনে সরকারের প্রত্যেকটি দপ্তর ও দেশের সকল নাগরিক একটি করে বৃক্ষের চারা রোপনে দেশের পরিবেশ রক্ষায় অংশগ্রহণ করতে তিনি সকলের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন