1. admin@dailykhaborekdin.com : দৈনিক খবর একদিন :
  2. khaborekdin2012@gmail.com : Khabor Ekdin : Khabor Ekdin
শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৩:৪৫ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ
দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে গভীর/অগভীর নলকূপ মালিকদের নিয়ে দিনব্যাপী কর্মশালা। ভারতে করোনা নেগেটিভ, হিলি চেকপোস্টে পজিটিভ দিনাজপুরিয়া ইঞ্জিনিয়ার্স অব টেক্সটাইল পরিবারের শীতবস্ত্র বিতরণ দিনাজপুরে লংকাবাংলা ফাউন্ডেশনের বাইসাইকেল বিতরণ ব্রোকলি চাষে লাভবান কৃষক বোচাগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি স্বর্গীয় পরেশ চন্দ্র সরকারের ৭ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে শীতবস্ত্র বিতরণ দিনাজপুর সদরের ১০ ইউপি নির্বাচনে ৫৭ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ ৫৫২ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা দিনাজপুরে ছাত্রলীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন ঘোড়াঘাটে গাঁজার গাছ সহ আটক ১ দশমাইলে মিডল্যান্ড ব্যাংকের উদ্যোগে বীরমুক্তিযোদ্ধাদের করোনা সামগ্রী বিতরন

বিরামপুর উপজেলার বিনাইল ইউনিয়নের সফল চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম

দৈ‌নিক খবর একদিন ডেস্ক
  • সর্বশেষ সংবাদ মঙ্গলবার, ১৭ আগস্ট, ২০২১
  • ৪৮৬ বার প‌ঠিত

মোঃ শাহীনুর আলম, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ

প্রত্যেক মানুষের বিভিন্ন স্বপ্ন থাকে, সাধ থাকে। কিছু স্বপ্ন বা সাধ পূরণের পথে পা বাড়ালেই আসতে থাকে নানান প্রতিবন্ধকতা। যে মানুষ এসব প্রতিবন্ধকতা ডিঙিয়ে এগিয়ে যাবেন তিনিই হবেন সফল। তেমনই এক সফল মানুষ ও সমাজ সেবক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন, দিনাজপুর জেলার বিরামপুর উপজেলার ৫নং ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম। তিনি রংপুর বিভাগের চেয়ারম্যান হিসেবে ২য় স্থান ও দিনাজপুর জেলায় ১ম স্থানের অধিকারী হয়েছেন। যিনি অনেক বাধা বিপত্তি পেরিয়ে একজন সফল চেয়ারম্যান হিসেবে এলাকায় পরিচিত হয়েছেন। সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা পূরণে তিনি নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছেন।
তিনি তাঁর পরিশ্রম, সাহস, ইচ্ছাশক্তি, একাগ্রতা আর প্রতিভার সমন্বয়ে সাধারণ মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য, স্থানীয় সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড সঠিক ও সুচারুভাবে বাস্তবায়নের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।
ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবে সফলতা পাওয়ায় তিনি আজ বিরামপুর উপজেলার সর্বত্র সম্মানিত হচ্ছেন। বিনাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই উল্লেখযোগ্য উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা রেখে সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছেন। এলাকার হতদরিদ্র মানুষের উন্নয়নে তাঁর নিরন্তর প্রচেষ্টা সব মহলেই প্রশংসা কুঁড়িয়েছে।
বিনাইল ইউনিয়নের রাস্তা ঘাটের উন্নয়ন, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবায় বিশেষ অবদান, সামাজিক উন্নয়নসহ বিভিন্ন প্রকল্পের বাস্তবায়নে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়ে সফল জনপ্রতিনিধি হিসেবে এলাকায় নিজের অবস্থান পোক্ত করেছেন। অসংখ্য মসজিদ, মাদ্রাসা, স্কুল ও বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের অন্যতম পৃষ্ঠপোষক সমাজসেবী ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম। ব্যক্তি জীবনে তিনি অত্যন্ত নম্র, ভদ্র, সদাহাস্যোজ্জ্বল, সুশিক্ষায় শিক্ষিত ও সাদা মনের মানুষ। তাঁর মাঝে কোন অহংকার নেই। নিরহংকারী এই মানুষটি দলমত নির্বিশেষে আজ সকলের কাছে প্রিয়। নিরলসভাবে কাজ করছেন সাধারণ মানুষের কল্যাণের জন্য।
এই সফল মানুষটি ইউনিয়নের প্রতিটি মানুষের বিপদ আপদে ছুটে যান। এলাকায় তিনি একজন সাদা মনের উদার মানসিকতার ও দানশীল মানুষ হিসেবে ইতিমধ্যে পরিচিতি লাভ করেছেন।
বিনাইল ইউনিয়নের সাধারণ মানুষের মতে, শহিদুল চেয়ারম্যান ভাই একজন ভাল মানুষ। চেয়ারম্যান হয়ে তিনি আমাদের জন্য অনেক কিছু করেছেন। করোনা ভাইরাস কমে গেলেই আবার ইউপি নির্বাচন হবে। পুনরায় তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে আমাদের এলাকার মানুষের আরো বেশি উপকার হবে। আমাদের দুঃখ- দুর্দশায় তাঁকে সহজেই পাশে পাওয়া যায়। ইতোমধ্যে তিনি সমাজের সকল মতাদর্শের মানুষের কাছে একজন দক্ষ, পরিশ্রমী ও মেধাবী সমাজ সেবক এবং উদীয়মান নেতা হিসাবে ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেছেন।
তারা আরো বলেন, নির্বাচনকালীন সময়ে সাধারণ জনগনকে দেওয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করে একজন সফল ও জনপ্রিয় ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবে সবশ্রেনীর মানুষের অন্তরে স্থান করে নিয়েছেন বিনাইল ইউনিয়নের জনপ্রিয় চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম ভাই।
এলাকার গরীব দুঃখী মানুষের পাশে থেকে তিনি সব সময় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। সর্বোপরি গরীব মেহনতী মানুষের প্রকৃত জনদরদী হিসেবে তিনি এলাকায় ব্যাপক পরিচিত ও জনপ্রিয়তা লাভ করেছেন।
বিনাইল ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম জানান, আমার বড় ভাই জাহিদুল ইসলাম জাহিদ ইতিপূর্বে বিনাইল ইউনিয়নে সফলতার সাথে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেছেন। সেজন্য এলাকার সব শ্রেণির মানুষের কাছে আমাদের পরিবারের আলাদা একটা সম্মান ও গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে। পারিবারিক ঐতিহ্য অনুযায়ী আমি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার আগে থেকেই বিনাইল ইউনিয়নের অসহায় মানুষের পাশে থেকে সবসময় তাদের জন্য কাজ করেছি। স্কুলের যেকোন অসহায় ও গরীব ছাত্র/ছাত্রীদের বই কেনা থেকে শুরু করে ভর্তি ও চিকিৎসার ক্ষেত্রে সাধ্যমতো আর্থিক সহায়তা অব্যহত রেখেছি। করোনা মহামারীতে সরকারি ত্রাণের পাশাপাশি নিজ তহবিল থেকে অসহায় ও দরিদ্র মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করাসহ সমাজসেবামূলক কার্যক্রমের সাথে এখনও আছি এবং ভবিষ্যতেও একইভাবে কাজ করে যাব।
তিনি আরো বলেন, চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে বিনাইল ইউনিয়নের বিভিন্ন রাস্তাঘাট, স্কুল, মাদ্রাসা, কবরস্থান, মসজিদ, মন্দির এর উন্নয়নসহ গরীব দুঃখী মানুষের মাঝে বয়স্কভাতা, বিধবাভাতা ও প্রতিবন্ধী ভাতা সঠিকভাবে বিতরণ এবং বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করেছি। সততা ও নিষ্ঠার সাথে গ্রাম্য আদালতের এখতিয়ারভূক্ত ইউনিয়নের বিভিন্নজনের অভিযোগ ও সমস্যার সমাধান করেছি। স্থানীয় প্রশাসনের সার্বিক তত্বাবধানে প্রতিটি উন্নয়নমূলক কাজ সততা ও দক্ষতার সাথে সম্পন্ন করেছি, যা এখনও চলমান আছে। আগামী নির্বাচনে পুনরায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে অসমাপ্ত কাজগুলো শেষ করে বিনাইল ইউনিয়নকে একটি মডেল ইউনিয়ন হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার ইচ্ছে রয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সকল সংবাদ
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )
%d bloggers like this: