ডোমারের জোড়াবাড়ী ইউপি নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী যুবলীগ নেতা আজাহারুল ইসলাম জুয়েল

স্টাফ রি‌পোর্টারঃ নীলফামারী ডোমার উপজেলার ৪ নং জোড়াবাড়ী ইউনিয়ন আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতিক নৌকা মার্কার মনোনয়ন প্রত্যাশী জোড়াবাড়ী ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আজাহারুল ইসলাম জুয়েল।

শনিবার (১১ সেপ্টেম্বর)ইউনিয়নের বিভিন্ন পাড়া মহল্লায় হাট বাজারের দেয়ালে,দোকানে, রাস্তাঘাটে এলাকাবাসী ও সর্বস্তরের জনগণের সৌজন্যে যুবলীগ নেতা জুয়েলের পক্ষে পোস্টার লাগানো চোখে পড়ে। এলাকাবাসীর সমর্থন নিয়ে নিজেকে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতিক নৌকা মার্কার মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে এলাকায় ব্যপক প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছেন তরুণ উদীয়মান এবং এলাকার সকলের আস্থাভাজন জনবান্ধন নেতা জুয়েল।

তাছাড়াও বিভিন্ন সময়ে দলীয় কার্যক্রম থেকে শুরু করে এলাকার সামাজিক সাংস্কৃতিক কার্যকলাপের সাথে নিজেকে সম্পৃক্ত রেখেছেন বলে জানিয়েছেন একাধিক এলাকাবাসী। যদিও এখনো ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হয়নি।

এবিষয়ে ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ও দলীয় প্রতিক নৌকা মার্কার মনোনয়ন প্রত্যাশী তরুণ উদীয়মান যুবনেতা আজাহারুল ইসলাম জুয়েল বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি ও গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে ভাবে সকল বাধা বিপত্তি পেরিয়ে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত করতে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন জননেত্রীর কাজকে অনুসরণ করে আমিও এলাকায় মাদক, জুয়া, অসামাজিক কার্যকলাপ এবং দূর্নীতির বিরুদ্ধে একাত্বতা ঘোষণা করে জোড়াবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদকে ডিজিটাল ইউনিয়ন পরিষদ গড়ার লক্ষ্যে নিয়ে কাজ করতে চাই।

এইজন্য আমি জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে জোড়াবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রতিক নৌকা মার্কার জন্য মনোনয়ন প্রত্যাশী।

তিনি আরও বলেন, ছাত্র জীবনে আমি ২০০১ সালে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত হই। ছাত্রলীগের রাজনীতি শেষ করে ২০১৩ সালে জোড়াবাড়ী ৬ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতির দায়িত্ব পাই এবং একটানা ২০১৭ সাল পর্যন্ত দ্বায়িত্ব পালন করি, এবং আমার রাজনৈতিক দ্বায়িত্ববোধে সন্তোষজনক ফলাফল পাওয়ায় কারণে উপজেলা কমিটি ২০১৮ সালে আমাকে জোড়াবাড়ী ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতির দায়িত্ব দেয়। সেই থেকে আজ অবধি মুজিব আদর্শের সৈনিক হিসেবে আমার উপর অর্পিত দ্বায়িত্ব নিষ্ঠার সাথে পালন করে আসছি।

আমি আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান আমার পিতা ১৯৮৪ সালে জোড়াবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য পদ লাভ করেন। বর্তমানে তিনি ৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দ্বায়িত্ব পালন করেছেন, তাই আমি আশাবাদী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমার পারিবারিক রাজনৈতিক পেক্ষাপট বিবেচনা করে জোড়াবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতিক আমাকে দিলে আমি অত্র ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবো ইনশাআল্লাহ।

এবং জননেত্রী শেখ হাসিনাকে দলীয় চেয়ারম্যান পদটি উপহার দিতে পারবো। এবং জোড়াবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদকে একটি দূর্নীতিমুক্ত, মাদকমুক্ত সন্ত্রাস বিরোধী কার্যক্রম, জুয়া সহ বিভিন্ন অসামাজিক কার্যকলাপ থেকে মুক্ত করে জোড়াবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদকে ডিজিটাল ইউনিয়ন পরিষদ হিসেবে গড়ে তুলতে পারবো বলে দৃঢ় প্রত্যায় ব্যক্ত করেন তিনি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন