দিনাজপুর জেলায় ‘এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ’ শীর্ষক প্রচার কার্যক্রম চলছে

দিনাজপুর জেলায় ‘এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ’ শীর্ষক প্রচার কার্যক্রম চলছে। সরকারের উন্নয়ন কার্যাবলী জনগণকে অবহিত করতে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে ভ্রাম্যমান এলইডি ভ্যানের মাধ্যমে এ প্রামান্য চিত্র প্রদর্শন করা হচ্ছে। গণযোগাযোগ অধিদপ্তরের গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে প্রচার কার্যক্রম শক্তিশালীকরণ প্রকল্পের মাধ্যমে এ কার্যক্রম বাস্তবায়ন হচ্ছে। দিনাজপুরের ৭৩ টি স্পটে এ প্রান্তিকে এ প্রচার কার্যক্রম চলবে।
প্রচার কার্যক্রমের অংশ হিসেবে ৫ নভেম্বর সন্ধ্যায় দিনাজপুর শহরের গোর-এ-শহীদ ময়দানে এলইডি ভ্যানের মাধ্যমে প্রামান্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। দিনাজপুর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো: শরিফুল ইসলাম অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে প্রচার কার্যক্রম শক্তিশালীকরণ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক জনাব মোহাম্মদ ওমর ফারুক দেওয়ান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফারুকুজ্জামান চৌধুরী মাইকেল, সিনিয়র তথ্য অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মো: সোহেল মিয়া, সদর উপজেলা আনসার ও ভিডিপির কর্মকর্তা মো: আবু সাইদসহ প্রমূখ।
এ প্রকল্পের আওতায়, সরকারের বাস্তবায়নাধীন মেঘা প্রকল্প, ১০ উদ্যোগ, টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট (এসডিজি), ভিশন-২০২১ ও ডিজিটাল বাংলাদেশ, মাদকের ভয়াবহতা, বাল্যবিবাহ ও সন্ত্রাসবিরোধী কার্যক্রম প্রতিরোধে বিশেষ প্রচারনার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। এছাড়া জঙ্গী তৎপরতা, দুর্নীতি, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি, খাদ্যে ভেজাল মিশ্রণ, নারী ও শিশু পাচার ইত্যাদি প্রতিরোধে প্রচলিত আইন সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধিমূলক প্রচারণা করা হয়। নাগরিকের মৌলিক স্বাস্থ্য, শিক্ষা, শিশু অধিকার, লিঙ্গ সমতা, নারী অধিকার ও নারীর ক্ষমতায়ন, নারী নির্যাতন ও যৌতুক বিরোধী আইন, নারীর প্রতি সহিংসতা, পরিবার পরিকল্পনা, সেনিটেশন, এইচআইভি/এইডস, এসটিডিসহ বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ বিষয়ে গ্রামীণ জনগোষ্ঠিকে সচেতন করা এ প্রকল্পের অন্যতম উদ্দেশ্য বলে জানা যায়।
এ প্রচার কার্যক্রম বাস্তবায়ন করতে আনসার ও ভিডিপি কো-অপারেটিভ সোসাইটি (আভিকো) লিঃ মাধ্যমে দেশব্যাপী ১৯ হাজার স্পটে প্রামান্য চিত্র প্রদর্শন করা হচ্ছে। এ ছাড়া সকল জেলা তথ্য অফিসের মাধ্যমে ১৯ হাজার ৮৪৪ স্থানে চলচ্চিত্র প্রদর্শন করা হয়। গ্রামীণ নারী সমাজকে সচেতন করার লক্ষ্যে প্রকল্পের আওতায় ১৩৯০টি মহিলা সমাবেশ করা হয়। ভাসমান জনগোষ্ঠীকে সচেতন করতে ৮ হাজার ৫২টি পথ সঙ্গীত অনুষ্ঠান করা হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক বলেন, সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রমের খবর প্রতিটি ঘরে পৌঁছে দিতে হবে। ডিজিটাল বাংলাদেশের সুফল যাতে সকল নাগরিক পায় তার জন্য কাজ করতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে প্রকল্প পরিচালক বলেন, গণতান্ত্রিক সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রম জানার অধিকার জনগণের রয়েছে যাতে তারা এর থেকে সুফল গ্রহণ করতে পারে। চলমান কোভিড পরিস্থিতিতে দেশে বাল্যবিবাহের প্রকোপ বন্ধে খবর পাওয়া মাত্র জেলা-উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করার জন্য জনগণের প্রতি তিনি আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানের সার্বিক মূল্যায়ন ও পরিবীক্ষণ করতে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের আইএমইডির সিনিয়র এসিস্ট্যান্ট চিফ মো: বশির আহমেদ উপস্থিত ছিলেন। -প্রেস রিলিজ, জেলা তথ্য অফিস, দিনাজপুর।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন