দিনাজপুরে কমিউনিষ্ট পার্টির সাধারন সভা অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার \ মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত বাংলাদেশ ৫০ বছর অতিক্রম করেছে। মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহনকারী জনগন যে ধরনের রাষ্ট্র প্রতিষ্টার স্বপ্ন দেখেছিলেন দেশ আজ তার উল্টে পথ ধরে চলছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা-ধারা ও রাষ্ট্রীয় চার মূলনীতি থেকে বিচ্যুত হয়ে ক্ষামতাসীন শাসকশ্রেণী গণতন্ত্র ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতা হরণ করে সাম্রাজ্যবাদী বিশ্বায়নের অধিন্যস্থ পুঁজিবাদের বাজারি ধারায় রাষ্ট্র পরিচালনা করছে। অর্থনীতিতে যে অবাধ লুটপাটের ধারা অনুসরণ করা হচ্ছে তাতে বাড়ছে শোষণ-বৈষম্য, মানুষের মধ্যে জমা হচ্ছে ক্ষোভ ও হতাশা। এ সময় কালে দুনিয়াব্যাপী করোনা মহামারী বিপর্যয়ের ঢেউ বাংলাদেশেও আঘাত করেছে। করোনাকালে এ দেশের অসংখ্য মানুষ যেমন মৃত্যুবরণ করেছেন, করোনা সৃষ্ট জীবন- জীবিকার সংকটে বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে কোটি কোটি মানুষ। গোটা জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে করোনাকালীন এ মানবিক দুর্যোগ মোকাবিলা করতে ক্ষমতাসীনরা ব্যর্থ হয়েছে। সরকার ও ক্ষমতাসীন দলের দুর্নীতি, লুটপাট, অব্যবস্থাপনা, গণবিরোধী নীতির কারণে সংখ্যাগরিষ্ঠ শ্রমজীবী মেহনতি মানুষের জীবনযাত্রা বিপর্যয় হয়ে উঠেছে। আর অন্যদিকে লুটেরা ধনিক শ্রেনীর প্রতিনিধিদের সম্পদ বৃদ্ধি পেয়েছে। শোষন লুটপাটের নির্মম ধারা অব্যাহত আছে। প্রধান অতিথিদের উপরোক্ত বক্তব্য গুলো তুলে ধরেন ও সামনে দ্বাদশ কংগ্রেস এর উপর সাংগঠনিক গঠনতন্ত্রের উপরে বক্তব্য তুলে রাখেন।
শনিবার দিনাজপুর নাট্য সমিতি মিলনায়তনে সকাল ১১ টায় দিনাজপুর জেলা সভাপতি এ্যাড. মেহেরুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে ও জেলা সাধারন সম্পাদক ইকবাল হাসান সিদ্দিকীর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের কমিউনিষ্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সাধারন সম্পাদক সাজ্জাদ জহির চন্দন। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কমরেড আলতাফ হোসাইন, জেলা সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য কমরেড হাফিজার রহমান, জেলা সদস্য কমরেড মনিরুজ্জামান, কমরেড রনজিৎ কুমার রায়, জেলা সদস্য দয়ারাম রায় প্রমুখ। #

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন