ঢাকাবুধবার , ২২ মে ২০২৪
  1. আইন-আদালত
  2. আন্তর্জাতিক
  3. আবহাওয়া
  4. কুড়িগ্রাম
  5. কৃষি
  6. ক্যাম্পাস
  7. ক্রিকেট
  8. খেলা
  9. গাইবান্ধা
  10. চাকরির খবর
  11. জাতীয়
  12. ঠাকুরগাঁও
  13. তথ্যপ্রযুক্তি
  14. দিনাজপুর
  15. নীলফামারী
আজকের সর্বশেষ সবখবর

পাটের সোনালী ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে – বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী নানক

একদিন ডেস্ক
মে ২২, ২০২৪ ২:৪৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

জেলা প্রতিনিধি, দিনাজপুর: বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবির নানক এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার পাটের গৌরবময় সোনালী ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে নিরলসভাবে কাজ করছে। বুধবার বিকালে দিনাজপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে দিনাজপুর জেলার পাট চাষী, মিল মালিক, ব্যবসায়ী এবং পাটখাত সংশ্লিষ্ট অংশীজনের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি বক্তব্যে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী বীরমুক্তিযোদ্ধা এ্যাড. জাহাঙ্গীর কবির নানক এমপি এসব কথা বলেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি।

তিনি বলেন, এজন্য পাটবীজের আমদানি নির্ভরতা কমিয়ে আনতে হবে। দেশে ছয় হাজার মে.টন পাটবীজ প্রয়োজন, অথচ উৎপাদন হয় মাত্র এক হাজার পাঁচশত মে. টন। বাকী সাড়ে চার হাজার মে. টন বীজ ভারত থেকে আমদানি করতে হয়। কাজেই ব্যাপকভাবে পাটবীজ উৎপাদনে কৃষকদের উৎসাহিত করতে হবে।

বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, এমপি বলেছেন, সরকার ‘পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যমূলক ব্যবহার আইন-২০১০’, ‘পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যমূলক ব্যবহার বিধিমালা, ২০১৩’ এবং ‘পাট আইন, ২০১৭’ প্রণয়ন করেছে। আইন বাস্তবায়নের জন্য জেলা প্রশাসকদের আহবায়ক করে ৪১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। এছাড়া দিনাজপুর, নওগাঁ, চাপাইনবাবগঞ্জ, কুষ্টিয়া, শেরপুর জেলাসহ চাল উৎপাদন প্রবণ ১৮টি জেলার চালকলসমূহে পাটের বস্তার ব্যবহার নিশ্চিতকরণের জন্য বিশেষ কর্মসূচি চলমান রয়েছে। তিনি দিনাজপুরে চালকল মালিকদের চালে পাটের বস্তা বাধ্যমূলক ব্যবহার করার আহ্বান জানান।বস্ত্র মন্ত্রী পরিবেশ রক্ষায় আইনটি বাস্তবায়নে কঠোর হবার নির্দেশ দেন।

তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী চান সোনালী আঁশের আভিজাত্য ফিরিয়ে আনতে। সেজন্য আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। মন্ত্রী বলেন, দেশের অর্থনীতিতে পাটের হারানো ঐতিহ্য পুনঃরুদ্ধার এবং পরিবেশ বান্ধব পাটজাত পণ্যের বহুমুখী ব্যবহারের জন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্টা গ্রহণ করতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা অনুশাসন প্রদান করেছেন। তিনি পাটের উৎপাদন ও বহুমুখী পাটপণ্যের ব্যবহার বৃদ্ধির করতে দিক নির্দেশনা দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন ও দিক নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

বিশেষ অতিথি জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি বলেছেন, সরকার ব্যবসায়ীদের প্রতিপক্ষ নয়, ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে দেশ সমৃদ্ধ হোক,পরিবেশ রক্ষা সহ জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় ভুমিকা রাখবে। স্বল্পতম সময়ে দিনাজপুরের চালকলগুলো পাটের ব্যাগ ব্যবহার নিশ্চিত করার আহ্বান জানান হুইপ ইকবালুর রহিম। তিনি বলেন সোনালী আশেঁর দেশ বাংলাদেশ বিদেশী উপর নির্ভরতা কমিয়ে স্বনির্ভরতা আনতে হবে।

দিনাজপুর জেলা প্রশাসক শাকিল আহমেদ এর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন বিশেষ অতিথি দিনাজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ জাকারিয়া জাকা, নীলফামারী-৪ আসনের সংসদ সদস্য সিদ্দিকুল আলম সিদ্দিক, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ আব্দুর রউফ, পাট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক জিনাত আরা, দিনাজপুর পুলিশ সুপার শাহ ইফতেখার আহমেদ, দিনাজপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলতাফুজ্জামান মিতা, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোসাদ্দেস হোসেন, দিনাজপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির সভাপতি রেজা হুমায়ুন ফারুক চৌধুরী শামীম, দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক গোলাম নবী দুলাল, সাবেক সভাপতি চিত্ত ঘোষ, সাংবাদিক রেজাউল করিম রঞ্জু, ব্যবসায়ী, সহিদুর রহমান পাটোয়ারী মোহন, সাদেকুল ইসলাম, এ ছাড়াও বক্তব্য রাখেন জেলার বিভিন্ন উপজেলা নির্বাহী অফিসার, পাট চাষী, জুট মিল মালিক, পোল্ট্রি ফিড ব্যবসায়ী, অটোরাইস মিল ব্যবসায়ী প্রতিনিধিবৃন্দ।